29 C
Dhaka
শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, | সময় ৩:২২ অপরাহ্ণ

মাদক নির্মূলে ব্যাতিক্রমী উদ্যোগ মোংলা থানা পুলিশের

জসিম উদ্দিন,বিশেষ প্রতিনিধিঃ

মাদক নির্মূলে ব্যাতিক্রমী উদ্যোগ নিয়েছে মোংলা থানা পুলিশ। চিহ্নিত মাদক কারবারিদের স্বাভাবিক জিবনে ফেরা আর মাদক সেবন বন্ধে উপজেলা ব্যাপি থানা পুলিশের পক্ষ থেকে মাইকিং করা হচ্ছে। এলাকা ভিত্তিক উঠান বৈঠক করে জনসচেনতা বৃদ্ধি করা হচ্ছে। বৃহঃপতিবার সকাল থেকে রাত পর্যন্ত ভ্যান গাড়ীতে মাইক লাগিয়ে উপজেলার প্রত্যন্ত এলাকায় মাদক সেবন বন্ধ আর মাদক কারবারিদের স্বাভাবিক জিবনে ফিরতে প্রচারনা চালাতে দেখা গেছে মোংলা থানার পুলিশ কর্মকর্তাদের। প্রচারনায় সতর্ক বার্তা দিয়ে জানানো হয়, পুলিশের আহবানে সাড়া দিয়ে মাদককারবারিরা যদি মাদক বেচাকেনা আর মাদক সেবন বন্ধ না করেন ,ওইসব ব্যাক্তিদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুক ব্যবস্থা নেয়া হবে পুলিশের পক্ষ থেকে।

মোংলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইকবাল বাহার চৌধুরী জানান,বাগেরহাট জেলাকে মাদক মুক্ত করতে জেলা পুলিশ সুপার পংকজ চন্দ্র রায় এর পক্ষ থেকে প্রতিটি থানায় কঠোর নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। সে নির্দেশনা বাস্তবায়নে মোংলা থানা পুলিশ কার্যক্রম শুরু করেছে। মোংলা পোট পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ড কে তিন ভাগে ভাগ করে তিনটি আর ছয়টি ইউনিয়নে একটি করে,উপজেলা ব্যাপি মোট ৯টি বিট অফিস চালু করে সকল অপরাধমুলক কর্মকান্ড বন্ধে কার্যক্রম চালানো হবে। এছাড়া যাচায় বাচায় করে মাদককারবারিদের চিহ্নিত করে তাদের বাড়ীতে নিশানা দেয়া হবে। মাদক সেবনকারীদের বিরুদ্ধেও নেয়া হবে কঠোর আইনানুক ব্যবস্থা। পুলিশের এসব মাদক বিরোদী কর্মকান্ড জনসাধারনকে জানান দিতে মাস ব্যাপি চালানো হবে মাইকিং কার্যক্রম আর উঠান বৈঠক । একই সাথে চলমান থাকবে মাদক বিরোদী পুলিশি অভিযানও।

মাদক বিরোদী সামাজিক আন্দোলন মোংলা”র আহবায়ক শেখ কামরুজামান জসিম বলেন, দির্ঘ কয়েক বছর যাবৎ মাদক নির্মূলে তাদের সংগঠনের পক্ষ থেকে নানা কার্যক্রম চালানো হয়েছে। তবে তাদের সেই কার্যক্রম তেমন সফলতা বয়ে আনতে পানেনি। তিনি আশা প্রকাশ করেন, জেলা পুলিশ সুপারের নির্দেশনায় মোংলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার নতুন উদ্যোগ মাদক নির্মূলে শতভাগ কার্যকর হবে।

এদিকে পুলিশের পক্ষ থেকে মাদক নির্মূলে মাইকিং আর উঠান বৈঠক শুরু হওয়ার আশার আলো দেখছেন মোংলার সচেতন ব্যাক্তিরা। বাংলাভিশন টেলিভিশনের রির্পোটার এবং মোংলা প্রেসক্লাবের সাবেক সহ সভাপতি ও নিরাপদ সড়ক আন্দোলন মোংলা শাখার আহবায়ক মোঃ জসিম উদ্দিন বলেন, সমুদ্র বন্দর হওয়ার সুবাধে বানিজ্যিক জাহাজ থেকে বিদেশি ব্রান্ডের মাদক পাওয়ার সহজ লভ্যতা আর কিছু উঠতি বয়সের যুবক সামাজিক অধপতের কারনে জড়িয়ে পড়েছেন, উয়াবা গাজাসহ নানা মাদক বেচা কেনার সাথে। মোংলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার কঠোরতায় এখন তারা পালিয়ে বেড়াচ্ছে। তবে পুলিশের অভিযানে প্রতিনিয়ত মাদককারবারি আর মাদক সেবনকারী ধরা পড়ছে । মাদক নির্মূলে পুলিশের নেয়া নতুন উদ্যোগ কার্যকর হবে বলে মনে করেন এ সাংবাদিক। ##
জসিম উদ্দিন,মোংলা-৩০-০৭-২০২০

আরও পড়ুন...

রাগ না করা উত্তম চরিত্রের বৈশিষ্ট্য!

Staff correspondent

রাজার হাটে লকডাউনে থাকা পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

Staff correspondent

নির্বাচনের আগের এবং পরের এনামুল হক শামীম

Staff correspondent
bn Bengali
X