26 C
Dhaka
সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, | সময় ২:২২ পূর্বাহ্ণ

সন্দ্বীপ উপজেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের সিএস দিদারুল আলমের বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত

বাদল রায় স্বাধীন সন্দ্বীপ উপজেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের ক্রেডিট সুপার ভাইজর দিদারুল আলম এর সাতকানিয়া উপজেলায় বদলীজনিত কারনে বিদায় সংবর্ধনার আয়োজন করেছে উপজেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর,সিআইজি প্রশিক্ষন প্রকল্প, কিশোর কিশোরী ক্লাব প্রকল্প ও উপজেলা তথ্য অফিস যৌথ ভাবে। আজ ৫ জুলাই সন্দ্বীপ উপজেলা বেগম ফজিলাতুন্নেসা মুজিব কনফারেন্স রুমে আয়োজিত বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মোঃ শামসুল আলম। উক্ত বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে কিশোর কিশোরী ক্লাবের আবৃত্তি শিক্ষক বাদল রায় স্বাধীনের সাবলীল উপস্থাপনায় বিদায়ী ক্রেডিট সুপার ভাইজরের দীর্ঘ ১০ বছর সন্দ্বীপে অবস্থান ও কর্মরত থাকা অবস্থায় প্রতিষ্ঠানের উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন এবং পরিবর্তনে ওনার ভুমিকা এবং বিভিন্ন স্তরের মানুষের সাথে হৃদ্যতাপুর্ন সম্পর্কের বিষয়ে স্মৃতিচারন মুলক বক্তব্য রাখেন – যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মোঃ শামসুল আলম,আইজিএ প্রশিক্ষক মোঃ রাকিব খাঁন,উপজেলা তথ্য সেবা কর্মকর্তা অনন্যা বেগম, উপজেলা চেয়ারম্যানের একান্ত সচিব মোঃ জিল্লুর রহমান, আবৃত্তি শিক্ষক হালিমা বেগম শান্তা, জেন্ডার প্রমোটর যথাক্রমে ওমর ফারুক বাপ্পি,মোঃ আবু ছায়েদ, জাহিদ হাসান প্রমুখ। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন দীর্ঘ ১০ বছর সন্দ্বীপে অবস্থান করে দিদারুল আলম, কর্মকর্তা শুন্য অফিসকে দক্ষ হাতে পরিচালনা করেছেন, একদিকে গুরুত্বপুর্ন অফিস হিসেবে কাজের প্রচন্ড চাপ অন্যদিকে কর্মকর্তা শুন্য ও লোকবলের সংকটে আগত সেবাগ্রহীতাদের কখনো বিব্রতকর পরিস্থিতি বা হয়রানির শিকার হতে দেননি তিনি। যথা সময়ে কাজ করে এবং ভালো আচরন দিয়ে উক্ত দপ্তরের সুনাম বৃদ্ধি করেছেন তিনি। এছাড়াও সন্দ্বীপের সকল স্তরের মানুষের সাথে ওতপ্রোত ভাবে জড়িয়ে গেছেন তিনি।সন্দ্বীপের বাইরে জন্ম হলেও তিনি আচার আচরনে একজন সন্দ্বীপির মতোই মিশে গিয়ে মানুষের হৃদয়ে একটি সুন্দর জায়গা করে নিয়েছেন। তাই আজকের এ বিদায়ের মাধ্যমে সকলের সাথে স্থানের ব্যবধান হলেও মনের তাগিদে এবং প্রযুক্তির কল্যানে সকলের অনেক কাছে অবস্থান করবেন বলে সকলে দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করে উনার নতুন কর্মস্থলে সফলতা ও সু-স্বাস্থ্য কামনা করে সন্মাননা স্মারক ও উপহার সামগ্রী তুলে দেন। অনুভুতি ব্যক্ত করতে গিয়ে বিদায়ী কর্মকর্তা বলেন আমার বয়সের দীর্ঘ একটি সময় আমি সন্দ্বীপে ব্যয় করেছি। সন্দ্বীপের আলো বাতাস ও মানুষের কাছে আমি ঋনী। আমি যেখানে অবস্থান করিনা কেন সন্দ্বীপের নাম ও সন্দ্বীপের মানুষগুলো আমার হৃদয়ে ও স্মৃতিতে সদা অমলীন হয়ে থাকবে। সব সময় তাদের অভাব অনুভব করবো।

আরও পড়ুন...

নিখোঁজের ছয়দিন পর কলেজ ছাত্র আশিকের লাশ উদ্ধার

Staff correspondent

দুই লাখ টাকা ঘুষসহ গ্রেপ্তার নৌ-পরিবহন অধিদপ্তরের সার্ভেয়ার সাইফুর কারাগারে

Staff correspondent

স্ত্রীকে নিয়ে জোয়াল টেনে সংসার চলে ৭০ বছরের বৃদ্ধের

Staff correspondent
bn Bengali
X