31 C
Dhaka
শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, | সময় ১:১২ অপরাহ্ণ

সন্দ্বীপে বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ মাষ্টার মোঃ আবুল কালাম আজাদ এর মৃত্যু বার্ষিকীতে স্মরন সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত।

বাদল রায় স্বাধীন

সন্দ্বীপ রহমতপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক, বিশিষ্ট নাট্যকার ও সংস্কৃতিকর্মী মরহুম মাষ্টার মোঃ আবুল কালাম আজাদ এর ৩য় মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে স্মরন সভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করেছে সন্দ্বীপের অন্যতম ক্রীড়া ও সামাজিক সংগঠন শান্তিনগর স্পোর্টিং ক্লাব। আজ ৩১ আগষ্ট সন্দ্বীপ পৌরসভার ৯ নং ওয়ার্ডস্থ শান্তিনগর এলাকায় অত্যান্ত শ্রদ্ধার সাথে এই স্মরন সভা ও দোয়া মাহফিলে মরহুমকে শ্রদ্ধাভরে স্মরন করেছেন সর্বস্তরের জনগন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন -সন্দ্বীপ উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান মাঈন উদ্দিন মিশন। বিশেষ অতিথি ছিলেন সন্দ্বীপ পৌরসভা আওয়ামীলিগের সুযোগ্য সভাপতি ও বিশিষ্ট সমাজ সেবক মোক্তাদের মাওলা সেলিম। সন্দ্বীপ প্রেসক্লাব সভাপতি ও হারামিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলিগ সভাপতি রহিম মোহাম্মদ। সভায় সভাপতিত্ব করেছেন ক্লাবের উপদেষ্টা ডাঃ মোঃ শামসুদ্দিন। অনুষ্ঠানে সঞ্চালকের দায়িত্বে ছিলেন ক্লাবের যুগ্ন সম্পাদক ও সাহিত্যকর্মী মহব্বত খান। মরহুমের বর্নাঢ্য কর্মময় জীবন নিয়ে স্মৃতিচারন মুলক বক্তব্য রাখেন,সাবেক এবি কলেজ ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক ফরিদুল মাওলা কিশোর, পৌরসভা আওয়ামীলিগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক ওমর ফারুক, ক্লাবের উপদেষ্টা মাষ্টার সোহেল রানা বাবলু, ক্লাবের সহ-সভাপতি মানজারুল ইসলাম খোকন,সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ শামীম প্রমুখ। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ক্লাবের উপদেষ্টা ও সমাজসেবক মোঃ রফিকুল ইসলাম, উপদেষ্টা মিন্টু সওদাগর, ক্লাবের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ রাশেদ উদ্দীন, অর্থ সম্পাদক সোহরাব, ক্রীড়া সম্পাদক আরিয়ান বিন আরিফ,যুবলীগ নেতা এসএম সুমন সহ সকল সদস্য ও রহমতপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্র/ছাত্রী বৃন্দ। সভায় বক্তারা বলেন মাষ্টার আবুল কালাম আজাদ স্যার ছিলেন একাধারে শিক্ষক, নাট্যকার, সংস্কৃতিকর্মী,ক্রীড়াবিদ ও গরীব ছাত্রদের শেষ ভরসার স্থল।গরীব ছাত্রদের বিনামুল্যে পড়ানো, ছেলেদের খারাপ কাজ থেকে দূরে সরিয়ে সাহিত্য ও সংস্কৃতির প্রতি আগ্রহী করে তোলা, ওনার পড়ানোর ধরন ও ছাত্রদের সাথে বন্ধুসুলভ আচরন ওনাকে অনন্য মাত্রায় নিয়ে গেছেন। ওনার মতো গুনী ব্যক্তির জন্ম বেশী জন্ম হয়না। যুগে যুগে যে কয়জন অমর ও কীর্তিমান ব্যক্তি জন্ম গ্রহন করেন তিনি ছিলেন সে অন্যতমদের একজন। ওনার মতো শিক্ষকের বিদায় মানে একজন সমাজ পরিবর্তনের কারিগরকে হারানো এবং দেশ ও সমাজের অপুরনীয় ক্ষতি। আমরা ওনার আত্মার শান্তি কামনা করছি। এবং আয়োজকদের এমন গুনী ব্যক্তির স্মরন সভার আয়োজন করায় ধন্যবাদ জানাচ্ছি। তবে অনেক বৃহত্তর পরিসরে ওনার স্মরন সভা আয়োজন করা উচিত যাতে ওনার ছোঁয়া পেয়ে যে সমস্ত ছাত্র/ছাত্রী দেশ বিদেশে বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদান রাখছেন তারাও সেখানে উপস্থিত হতে পারে।এবং ওনার স্মৃতি ধরে রাখতে একটি অবকাঠামো বা একটি ভবনের নামকরন করার জন্য বক্তারা আহব্বান জানান।

আরও পড়ুন...

“নীলফামারিতে আসাদুজ্জামান নূর এমপি’র  সহযোগিতায় ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ”

Staff correspondent

তাড়াশে বন্যার পানিতে ডুবে দুই বছরের শিশুর মৃত্যু

Staff correspondent

কলাপাড়ায় বিভিন্ন সংগঠনের উদ্দ্যেগে শহীদ বুদ্ধিজীবি হত্যা দিবস পালন ॥

Staff correspondent
bn Bengali
X