16 C
Dhaka
সোমবার, ২৫ জানুয়ারি ২০২১, | সময় ৪:৫১ পূর্বাহ্ণ

নড়াইলে এক লম্পট এর ফাদে পা দিয়ে স্বামী পরিত্যক্ত হলেন এক সন্তানের জননী।

উজ্জ্বল রায়, নড়াইল জেলা প্রতিনিধিঃ

নড়াইলে এক লম্পট এর ফাদে পা দিয়ে স্বামী পরিত্যক্ত হলেন এক সন্তানের জননী। নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার নলদী ইউনিয়নের ব্রমনীনগর গ্রামের রুহুল অামিন মোল্ল্যা ৩৫, পিং অা: মান্নান মোল্ল্যা এর ফাদে পা রেখে স্বামী সংসার ছাড়লেন এ সন্তানের মা।থানার অভিযোগের বিবরণ ও এই মহিলা খানম(২৫) এর সাথে কথা বলে জানা যায় তার বাড়ি নড়াইল সদর চন্ডিবরপুর ইউনিয়নে তার বাবার নাম শহীদ শেখ, থানা জেলা নড়াইল সদর। অভিযোগকারী মহিলা খানম বলেন, এই রুহুল অামিনের সাথে আত্মীয়তা হিসেবে পরিচয় শুরু হয় এক বছর আগে থেকেতখন থেকে রুহুল অামিন অামার মোবাইল নাম্বারটা কারো কাছ থেকে নিয়ে অামাকে বিভিন্ন সময় ফোন করতো এবং বিভিন্ন কথা বলতো অামি তখন তাকে অামার ফোনে ফোন দিতে নিষেধ করি, ও বলি অামার স্বামী সন্তানের কথা সে আমার কোন কথা কর্ণপাত করে না। এক পর্যায়ে তার সাথে আমার সম্পর্ক গড়ে ওঠে, তখন সে অামাকে নিয়ে সংসার করবে বলে অাশা দেন। অামি তার কাছে তার বউ বাচ্চা আছে নাকি জানতে চাই রুহুল অামিন বলে বউ অারেক লোকের সাথে চলে গেছে, অার বাচ্চাদের তার ভাইদের বাড়ি রেখে গেছে। তখন রুহুল আমিন অামাকে অনেক ধরনের আশা দেন ও বলেন তোমাকে নিয়ে অামি অনেক দুরে চলে যাব, ও তোমাকে অনেক সুখে রাখবো। এর মাঝে রুহুল অামিন অামাকে বিভিন্ন জায়গাতে ঘুরতে নিয়ে যায়,ও কোরঅান শরিফে হাত রেখে বলে তোমাকে বিয়ে করবো, সেই সময় রুহুল অামিন অামাকে আমার ইচ্ছার বিরুদ্ধে শারীরিক যৌন নির্যাতন করে।  এরপর থেকে বিয়ে করবে বলে রুহুল আমিন আমাকে অনেক দিন ঘুরাতে থাকে,এর কিছু দিন পরে রুহুল অামাকে ফোন দিয়ে কিছু টাকা লাগবে বলে জানাই, অামি তখন অামার কাছে থাকা বিশ হাজার টাকা রুহুল অামিন কে দিই। অার বলি বিয়ে কবে করবা। তখন বলে কয়দিন পরে। সেই কথা গুলো তখন অামার মোবাইলে রেকডিং করে রাখি। তখন রুহুল অামিন অামাকে বলে অার কিছু দিন পরে নড়াইলের চাকুরী ছেড়ে দেবো পরে বিয়ে করবো এর ১৫ / দিন পর রুহুল অামার কাছে অাবার টাকা চাই ও বলে দিনা অাছি সেই টাকা পরিষোধ করতে হবে,এই টাকা দেওয়া হলে তোমাকে বিয়ে করে নিয়ে চলে যাবো অানেক দুরে। তখন অামি অামার সোনা গহনা  সব বন্ধক রেখে নগত মোট তিন বারে ১ লক্ষ্য বিশ হাজার টাকা দেয় রুহুল অামিন কে।  এই টাকা নেওয়া হলে এর কিছু দিন পর থেকে রুহুল অামিন অামার সাথে যোগাযোগব্যবস্থা বন্ধ করে দেয় রুহুল অামিন।  একদিন সে আমার মোবাইলের ইমোতে আমাকে মেসেজ পাঠাই যে তাকে পেতে হলে অারো চার লক্ষ ৫০.০০০ হাজার টাকা দিতে হবে। টাকা না দিতে পারলে তার অাশা ছেড়ে দিতে তখন অামি অাগের টাকা দেওয়ার কথা বলি, তখন সে বলে অাগে যা দিছি সেটা বাদ। অামি কান্নাকাটি করলে সে গালিগালাজ করে অামাকে সে গুলা রেকডিং ও মেসেজ অামার কাছে অাছে। এর কিছু দিন পরে রুহুল আমিন  অামাকে বলে অামার স্বামী কে তালাক দিতে তাহলে সে অামাকে বিয়ে করবে, তখন অামি বাধ্য হইয়ে অামার স্বামী কে ১৫/৭/২০২০ তারিখ তালাক দেয় অামি অামার স্বামী কে তালাক দেওয়ার পর থেকে রুহুল অামিন অামার সাথে যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়, ও অামাকে জানাই তুই অামার যা করতে পারিস কর, তোর সাথে অামার সেক্স করা ভিডিওটা অাছে, তোকে বিয়ে করা অামার সম্ভব না। তখন অামি লোহাগড়া থানায় হাজির হইয়া একটি অভিযোগ দায়ের করি। লোহাগড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সৈয়দ আশিকুর রহমান বলেন অভিযোগ পেয়েছি সেটা নলদী পুলিশ ফাঁড়িতে পাঠানো হয়েছে তদন্ত করে ব্যাবস্তা নেওয়া হবে।

আরও পড়ুন...

নড়াইলে একাধীক মামলার আসামিকে গ্রেফতার

Staff correspondent

মির্জাপুরে পাগলা মহিষের শিংয়ের আঘাতে ১ ব্যক্তি মৃত্যু

Staff correspondent

চরফ্যাশনে বিতর্ক প্রতিযোগীতায় বিজয়িদের মাঝে পুরুস্কার বিতরণ।

Staff correspondent
bn Bengali
X