31 C
Dhaka
সোমবার, ২৬ অক্টোবর ২০২০, | সময় ৪:৩৪ অপরাহ্ণ

চার হাত-পা ভেঙে দেয়া সেই অন্তঃসত্ত্বা নারীর মৃত্যু

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা রহিমানপুর গ্রামে স্বামীর রডের পিটুনিতে চার হাত-পা ভেঙে যাওয়া সেই অন্তঃসত্ত্বা নারীর মৃত্যু হয়েছে। রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১৩ দিন চিকিৎসা পর পারভিন আক্তার (২৪) নামে এই নারী গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মারা যান।

পারভিন ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার বড়বাড়ী ইউনিয়নের মালঞ্চা গ্রামের শফিকুল ইসলামের মেয়ে। এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন ঠাকুরগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তানভিরুল ইসলাম জানান, গত ১৮ সেপ্টেম্বর তার স্বামী নূর ইসলাম তাকে পিটিয়ে চার হাত-পা ভেঙে দেন। এ ঘটনায় ঠাকুরগাঁও থানায় মামলা করেন পারভিনের বাবা। সেই মামলায় নূর ইসলাম গ্রেপ্তার হয়ে জেলহাজতে রয়েছেন।

রহিমানপুর ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান হান্নূ জানান, নূর ইসলাম তার স্ত্রীকে ঘরের দরজা ভেতর থেকে তালা দিয়ে বন্ধ করে লোহার রড দিয়ে পেটান। এতে তার দুই হাত ও দুই পা ভেঙে যায়। পরে পরিবারের লোকজন দরজা ভেঙে পারভিনকে উদ্ধার করে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে যান। অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঠাকুরগাঁও থানার ওসির ব্যবস্থাপনায় পারভিনকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। পারভিন ছয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন।

আরও পড়ুন...

মুরাদনগরে যুবলীগের উদ্যোগে ইফতার বিতরণ

Staff correspondent

পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থা না থাকায় পলাশবাড়ী পৌর এলাকা এখন পানির নিচে

Al Mamun Sun

নড়াইল-১ আসনের এমপি কবিরুল হক মুক্তির বিপুল পরিমাণ অসহায় পরিবারের মধ্যে ত্রান বিতরন!!

Staff correspondent
bn Bengali
X