28 C
Dhaka
রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, | সময় ২:০৪ অপরাহ্ণ

গ্রাম বাংলা থেকে হারিয়ে যাওয়া লাঠি খেলা দেখতে উৎসুক জনতার ভীড়

আতিকুর রহমান

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ

গ্রাম বাংলা থেকে হারিয়ে যেতে বসেছে লাঠি খোলা। আগে গ্রামের মানুষ কাজকর্ম শেষ করে মেতে উঠতো লাঠি খেলায়। সেই পরিবেশ এখন আর নেই। মানুষ এখন প্রযুক্তিতে আসক্ত। দল বেধে মোবাইল চালায়। গ্রামের এই লাঠিখেলার ঐতিহ্য ধরে রাখার মতো সরকারী উদ্যোগও চোখে পড়ে না। তাই কোথাও কোন লাঠি খেলার খবর আসলে বিভিন্ন এলাকা থেকে শত শত নারী-পুরুষ বৃদ্ধ-শিশু ভিড় জমায় সেখানে। খেলার মাঠ পরিণত হয় মিলন মেলায়। বাংলার হারিয়ে যাওয়া ঐতিহ্য ধরে রাখতে গ্রামবাসীর আয়োজনে এমনই এক লাঠি খেলার আসর বসেছিল ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার ফুলহরি গ্রামে। যা উপভোগ করতে ফুলহরি ইউনিয়নসহ আশপাশের এলাকা থেকে ছুটে আসে শত শত মানুষ। জায়গা না পেয়ে কেউবা গাছের ডালে আবার কেউবা বাশঝাড়ে উঠে খেলা উপভোগ করেন। বর্তমান যুব সমাজকে অপরাধের হাত থেকে দুরে রাখতে আর গ্রামীন ঐতিহ্য তাদের সামনে তুলে ধরতে এ ধরনের আয়োজন প্রতিনিয়ত চান দর্শকরা। খেলার আয়োজক শাকিল আহম্মেদ বলেন, হারানো ঐতিহ্য বর্তমান প্রজন্মের সামনে তুলে ধরতে এ আয়োজন করা হয়েছে। সমাজ থেকে মাদক ও বিভিন্ন অপরাধ দুরে রাখতে এ ধরনের আয়োজন করা দরকার বলে মনে করেন তিনি। খেলোয়াড়রা বলেন, মানুষকে খেলা দেখিয়ে আনন্দ পান তাই গ্রাম-গ্রামান্তরে ছুটে আসেন খেলা দেখাতে। দিনভর এ খেলায় অংশ নেয় ঝিনাইদহের বিভিন্ন উপজেলার ১২ টি লাঠিয়াল দল। সকলকে হারিয়ে প্রথম হয় শৈলকুপার মির্জাপুর গ্রামের দুলালের দল।

আরও পড়ুন...

এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা জেলায় প্রথম দিনে অনুপস্থিত ৮৫

Staff correspondent

রাণীশংকৈল প্রতিবন্ধী স্কুলে জেল হত্যা দিবস উপলক্ষে দোয়া ও আলোচনা অনুষ্ঠিত

Staff correspondent

কুড়িগ্রাম পৌরসভায় ঝুলছে তালা

Staff correspondent
bn Bengali
X