20 C
Dhaka
বুধবার, ২ ডিসেম্বর ২০২০, | সময় ২:৪৭ পূর্বাহ্ণ

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে তিস্তা ভাঙ্গনে ১৯০৪ সালে প্রতিষ্ঠিত সতর ঘর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টি হুমকি মুখে


সুমন মন্ডল গাইবান্ধা প্রতিনিধি :

বিগত লর্ড কার্জনের শাসনামলে  ১৯০৪ সালে প্রতিষ্ঠিত সতর ঘর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টি রক্ষায় দ্রুত পদক্ষেপ কামনা করছেন উপজেলার শিক্ষা অনুরাগি সচেতন মহলসহ স্থানীয়রা।  তারা স্থানীয় মাননীয় সংসদ সদস্য ,উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান,উপজেলা নির্বাহী অফিসার,জেলা ও উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার সদয়দৃষ্টি পুর্বক দ্রুত যথাযত পদক্ষেপ গ্রহনের নিবেদন করেছেন।
  সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়,তিস্তা নদীর তিব্র ভাঙ্গনে ১৯০৪ সালে প্রতিষ্ঠিত ‘ঐতিহ্যবাহী ‘ সতর ঘর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টি বিলীনের পথে। গত কয়েক দিন হতে সর্বনাশা তিস্তা নদীর তিব্র ভাঙ্গনে গাইবান্ধা জেলার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার চন্ডিপুর ইউনিয়নের উজান বোচাগাড়ী মৌজার ঠাকুর ডাঙ্গী গ্রামে ( হরিপুর খেয়া ঘাট নামে পরিচিত) অবস্থিত বৃটিশ আমলে প্রতিষ্ঠিত ঐতিহ্যবাহী সতর ঘর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টি ১৯০৪ সালে লর্ড কার্জনের শাসনামলে প্রতিষ্ঠিত হয় যা বর্তমানে নদীর তিব্র ভাঙ্গনে ধংসের মুখে এমতাবস্থায় বিদ্যালয়টি রক্ষায় সংশ্লিষ্ট দপ্তর সহ সকলকে দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য অনুরোধ জানিয়েছে স্থানীয়রা ।
তারা স্থানীয় সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী এমপি, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান  আশরাফুল আলম সরকার লেবু, উপজেলা নির্বাহী নির্বাহী অফিসার কাজী নুতফুল হাসান, জেলা শিক্ষা অফিসার হোসেন আলী ,উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার হারুন অর রশিদ কে বিদ্যালয়টি রক্ষায় দ্রুত নদী ভাঙ্গন রোধে কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য বিদ্যালয়টির ম্যানেজিং কমিটি, শিক্ষক, শিক্ষার্থী সহ এলাকাবাসী বিনীত অনুরোধ করেছেন। 
উল্লেখ্য,তিস্তা নদীর তিব্র ভাঙ্গনের ফলে ১৯০৪ সালে প্রতিষ্ঠিত ‘ঐতিহ্যবাহী ‘ সতর ঘর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টি ব্যাপক ভাবে হুমকি মুখে পড়েছে ৩০ হতে ৪০ মিটার দূরে নদীর ভাঙ্গন চলমান রয়েছে বিদ্যালয়টি রক্ষায় দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহন করা না হলে বিদ্যালয়টি বিলীন হওয়ার সম্ভবণা রয়েছে । এ কারণে সময় থাকতে বিদ্যালয়টি রক্ষায় জরুরী ভাবে ব্যবস্থা গ্রহন করা দরকার।

আরও পড়ুন...

নবীগঞ্জে অজ্ঞাত ব্যাক্তির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ

Al Mamun Sun

তাড়াইলে ভেজালবিরোধী অভিযান, ২৫ হাজার টাকা জরিমানা

Staff correspondent

মাধবপুরের প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার ২৫শ’ টাকার তালিকায় নয়-ছয়!

Staff correspondent
bn Bengali
X