16 C
Dhaka
রবিবার, ২৪ জানুয়ারি ২০২১, | সময় ৮:০৫ পূর্বাহ্ণ

আইনজীবীদের বিক্ষোভ স্থগিত, বাধ্যতামূলক ছুটিতে বিচারক

আসামির লকআপে আইনজীবীকে দুই ঘণ্টা ধরে আটকে রাখার অভিযোগে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতের ম্যাজিস্ট্রেটের অপসারণের দাবিতে বিক্ষোভ স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে। একই সাথে বিক্ষোভের মুখে সংশ্লিষ্ট বিচারককে দুই দিনের বাধ্যতামূলক ছুটিতে পাঠিয়েছেন আদালত।

বার ও বেঞ্চের এক সমন্বয়ে আলোচনা শেষে বুধবার (২৩ ডিসেম্বর) ঢাকা বারের সভাপতি ইকবাল হোসেন এই তথ্য জানান।

ঢাকার সিএমএম আদালত ও ঢাকা আইনজীবী সমিতির সভাপতি ইকবাল হোসেনসহ অন্যদের মধ্যে ঘণ্টাব্যাপী আলোচনা শেষে এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

আলোচনা শেষে ইকবাল হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, ঢাকার অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আসাদুজ্জামান নূরকে দুই দিনের ছুটিতে পাঠিয়েছেন ঢাকার সিএমএম। পরবর্তী সিদ্ধান্ত না আসা পর্যন্ত ওই আদালতের কার্যক্রম সাময়িকভাবে বন্ধ থাকবে। এছাড়া বিচারককে প্রত্যাহার বিষয়ে বার ও বেঞ্চের আইন মন্ত্রণালয়ে লিখিত আবেদন পাঠাবে।

আইনজীবী রুবেল আহমেদ ভুঞা অভিযোগ করেন, মঙ্গলবার (২২ ডিসেম্বর) তিনি ওই আদালতে মামলা পরিচালনা করতে যান। এ সময় সকাল সাড়ে ১০টায় বিচারক এজলাসে উঠবেন বলে জানান। কিন্তু ১১টার দিকেও বিচারক না উঠায় বিষয়টি পেশকারের কাছে জানতে চান। পরে আদালতের কার্যক্রম শুরু হলে বিচারক ওই আইনজীবীর মামলা না শুনে পরে আসতে বলেন।

কিছু সময় পরে তিনি আদালতে গেলে তাকে দুই ঘণ্টা লকআপে আটকে রাখেন এবং বলেন তার সনদ বাতিল করে দেবেন। একই সাথে সকল ম্যাজিস্ট্রেটকে বলে দেবেন যেন তার মামলা না শুনে।

এ ঘটনায় বিক্ষুব্ধ আইনজীবীরা বুধবার (২৩ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ওই বিচারকের এজলাস কক্ষ থেকে সবাইকে বের করে তালা দিয়ে দেন। একই সময় ম্যাজিস্ট্রেটের অপসারণের দাবিতে বিক্ষোভে নামেন তারা।

আরও পড়ুন...

খালেদার আরও চার মামলার স্থগিতাদেশ বহাল

Al Mamun Sun

মৃত্যুদণ্ডের রায়ের পরও রিফাত ফরাজীর মুখে হাসি

Al Mamun Sun

প্রধান বিচারপতির কাছে গেল আদালত অবমাননার রুল

Al Mamun Sun
bn Bengali
X